জোসেফ হাসপাতাল থেকে কারাগারে

567
শীর্ষ সন্ত্রাসী জোসেফ
রোজিনা ইসলাম
০৮ মে ২০১৭, ২৩:৫০ আপডেট: ০৮ মে ২০১৭, ২৩:৫৬

কোনো জটিল রোগ ছাড়াই টানা ২০ মাস ধরে হাসপাতালে থাকার পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী তোফায়েল আহমেদ জোসেফকে কারাগারে নেওয়া হয়েছে। সোমবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল (বিএসএমএমইউ) থেকে তাঁকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে নেওয়া হয়।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের কারাধ্যক্ষ মাহবুবুল ইসলাম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে জোসেফের হাসপাতালে থাকা নিয়ে একটি দৈনিকে প্রতিবেদন প্রকাশের পর কারা কর্তৃপক্ষ তাঁকে কারগারে নেওয়ার ব্যবস্থা নিয়েছে। এ ছাড়া সোহরাওয়ার্দী, মিটফোর্ডসহ অন্যান্য হাসপাতাল থেকেও আজ আরও অনেককে কারাগারে নেওয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে এভাবে দীর্ঘদিন ধরে হাসপাতালে থাকা সব বন্দীকে কারাগারে নেওয়া হবে।

এর আগে গতকাল রোববার ইয়াবা ব্যবসায়ী আমিন হুদাকে বারডেম হাসপাতাল থেকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

গত ৩ মে ‘২০ মাস হাসপাতালে শীর্ষ সন্ত্রাসী জোসেফ!’ এবং রোববার ৭ মে ‘আমিন হুদা জেল খাটছেন হাসপাতালের বিছানায়!’ শীর্ষক দুটি প্রতিবেদন প্রথম আলোতে প্রকাশিত হয়। এরপর বিষয়টি নিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে এ ব্যবস্থা নেওয়া হলো।

১৯৯৯ সালের একটি হত্যাকাণ্ডে জোসেফের মৃত্যুদণ্ড হয়। এই রায় বহাল রাখেন হাইকোর্ট। পরে আপিল বিভাগ সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন। এখনো সাজা ভোগ করা বাকি আছে ২০ বছর ৯ মাস। সম্ভাব্য মুক্তির তারিখ ২০৩৯ সালের ২৪ জানুয়ারি।